ক্ষমা, আসমা খান: Forgiveness, Asma Khan

128

ক্ষমা,  আসমা খান: Forgiveness, Asma Khan

এই দুঃসময়ে সেজদায় গিয়ে হে প্রভু,

অন্তরঙ্গ কথা বলা হোক

খুলে দিয়ে মনের দরজার বন্ধ করা খিল

খুলে দিয়ে আশৈশব স্মৃতির পাঁচিল।

 

সব দুঃখ, না বলা কথা, অপমান ছারখার

চাওয়া না পাওয়ার সেই অতৃপ্ত হাহাকার

সমস্ত গোপন কষ্ট, ক্ষোভ, ব্যাথা, শোক

আজ অকপটে ফরিয়াদ পেশ করা হোক।

 

মন স্বাধীন, একেক জন যেন অহংকারি সম্রাজ্ঞী, সম্রাট

ফেসবুক দেয়ালে সাজায় যত অর্জন, সম্ভাব্য রাজ্যপাট

সামাজিক রাজকোষে সন্মান, প্রতিপত্তি, হিংসা, ঘৃনা, লোভ

আকাংখায় গুড়ে বালি পড়লেই ফুঁসে ওঠে হুংকার বিক্ষোভ।

 

অহমিকা, দাপট, লোভের ফলে করে যত ছোট বড় ভুল

অন্যর ঘাড়ে চাঁপায় যখন সেই অনৈতিক ভুলের মাশুল

জোট বেঁধে আচমকা যখন এঁকে দেয় কলঙ্কের টিকা

বন্ধুত্বের বিশ্বাস কি শুধুই অলিক, দূর মরিচীকা?

 

সংকটের শিকার সামাজিক বয়কটে উপেক্ষার চোখ

সেজদায় হে প্রভূ! মাছুমের অভিমানী কষ্টের কথা হোক।

আসহায় অন্তরে  শান্তি দাও প্রভূ! দাও অন্য আলোক…

ঐ সব অবিচার হাহাকার ভুলে যাওয়া, ক্ষমার কথাও হোক।

 

পুব থেকে আগত ছিল অন্তরে বিশ্বাসের অনির্বান শিখা

ঐতিহ্য দিয়েছিল জোৎস্নার স্নিগ্ধতার সৌম্য অহমিকা

বিনীত কৃতজ্ঞতা, নতমুখ, দিয়েছিল ন্যায় অন্যায় বিবেচনা বোধ

বিরোধে ধৈর্য্যর পাঠ, পরোপোকারে জীবনের কিছু দায় শোধ।

 

তাই দলবেঁধে অপমান, বন্ধুত্ব খান খান, দাপটের ক্রোধ…

প্রতিবাদ নয়, ক্ষমা, ক্ষমার দোয়াই আজ মোর মহৌষধ!

ক্ষমার যোগ্য  কি তারা? হে প্রভু, সেজদায় ভোলাও মোর শোক

আমায় ক্ষমা কর প্রভু, যখন গন্তব্য মোর অনন্ত পরলোক

 

Facebook Comments