ঝাড়ু সমাচার – নাঈমা চৌধুরী, Broom Story by Nayeema Chowdhury

651

ঝাড়ু সমাচারনাঈমা চৌধুরী 

Broom Story by Nayeema Chowdhury 

 

দোকানটাতে ঢুকলে মনে হবে diagon alley- কোনো দোকানে ঢুকে পড়েছেন। এক্ষুনি হ্যারি পটার এসে হাজির হবে তার বন্ধু রন উইজলি আর হারমায়োনি গ্রেঞ্জারকে নিয়ে। হগওয়ার্টস উইজার্ডদের যা যা লাগবে তার প্রায় সবই পাওয়া যায় এখানে। নানা সাইজের ব্রুম, ম্যাজিক ওয়ান্ড, কাঁচের শিশিবোতল যা অনায়াসে ব্যবহার করা যাবে ম্যাজিক পোশন ভরে রাখার কাজে, এছাড়াও আছে কাঠের তৈরি নানা জিনিস। 

 

সেইন্ট জ্যাকবস্ এর এই দোকানটার নাম হ্যামেল ব্রুমস্। আমি অবশ্য নাম দেখে দোকানটাতে ছুটে গিয়েছিলাম নিতান্তই সাংসারিক একটি প্রয়োজনে। বিছানা ঝাড়ার কাজে নারিকেলের শলার ঝাড়ু যে কত প্রয়োজনীয় একটি বস্তু তা বাঙালী মাত্রই অনুধাবন করতে পারবেন। দেশ থেকে আসার সময় এই অপরিহার্য বস্তুটি সাথে আনা হয়নি। তাই ভেবেছিলাম ঝাড়ুর দোকানে কাছাকাছি কিছু পেলে আপাতত কাজ চালিয়ে নেব। কিন্তু ছাই উড়াতে গিয়ে পেয়ে গেলাম মানিক রতনের সন্ধান। আমার সাথের দুই হ্যারি পটার ফ্যান ম্যাজিক ওয়ান্ড নিয়ে একে অপরকে stupefy করতে ব্যস্ত হলো আর আমি ব্যস্ত হলাম ক্লিক করায়। কিন্তু / টা ছবি তুলতে না তুলতেই ফটোগ্রাফি নিষেধ লেখা একটা ছোট সাইনের দিকে তারা আমার দৃষ্টি আকর্ষণ করল। অগত্যা বিবিধ রতন পেয়েও ছবি তোলায় ক্ষান্ত দিতে হলো আমাকে।

 

হ্যামেল ব্রুমস্ নামের এই দোকানটি সম্পর্কে বাকিটুকু জেনেছি নেট থেকে। ১৯০৮ সালে প্রতিষ্ঠিত এই প্রতিষ্ঠানটি ক্যানাডার বিলুপ্ত প্রায় কর্ন ব্রুম প্রস্তুতকারক কোম্পানির একটি যারা এখনও এই ঐতিহ্যকে ধরে রেখেছে। বছরে এরা তৈরি করে প্রায় ২৪,০০০ ঝাড়ু। এর বর্তমান মালিক জন ডেভেনপোর্ট সেইন্ট জ্যাকবস্ এর এই দোকানটি স্থাপন করেন ১৯৯০ সালে। এখানে আপনি চাইলেই দেখে নিতে পারেন ঝাড়ু তৈরির প্রক্রিয়াটি। জন এর মতে, ঝাড়ুটি যদি কোনোকিছুর সাথে ঠেস দেওয়া ছাড়া সোজা করে রাখা যায় তবে সেটাই হলো পারফেক্ট ব্রুম। তবে ক্ষ্যাত বলেন আর যাই বলেন আমার মতো আপাদমস্তক বাঙালীর কাছে বিছানা ঝাড়তে এখনও শলার ঝাড়ুর কোনো বিকল্প নেই। ঐতিহ্য শুধু ওরা নয় আমরাও ধরে রাখতে পারি। তাও এই সাত সমুদ্র তের নদীর এপারে।

Facebook Comments