সুরভিত নিরবতা, আসমা খান, Scented Silence, Asma Khan

477

 

সুরভিত নিরবতা, আসমা খান, Scented  Silence, Asma Khan

বিশ্বাসতো রাখতেই হয় সংঘবদ্ধ কাজে

নানা জাতের নানা ভাষার নুতন এ সমাজে

তারপর এখানে শহরের নির্মানের বিধিমালায়

প্রকৃতির সাথে সখ্যতা রেখেই নগরায়ন হয়…

তবু গ্রীনবেল্টে  হটে যায়,

হাঁস পাখীর চারনভূমি বদলায়

পাশেই ‘কেলী ফিউনারেল হোম’

অনন্ত পরলোক যাত্রায় প্রানহীন কিছুক্ষন, এই প্রথম,

নির্জন শীতল একাকী কফিনে শুয়ে থাকে।

 

সোনালী গম্বুজ, সুউচ্চ মিনার ইটে ইটে গাঁথে

প্রথমার চাঁদ তাতে প্রশান্তির চিহ্ন আঁকে

সকলেই জানে মিলিত উদ্দ্যম

ছাড়া এমন মাইল ফলক স্থাপনা

কখোনই বানানো সম্ভব হোতনা।

সহস্রজনার নিবেদিত উপষনা

সুশৃঙ্খল ধর্মীয় সমারোহ

বিপুল জনসমাগম নিয়মিত, প্রত্যহ

ক্ষনিকতা, আধ্যাত্বিকতা, পার্থিব অসহায়বোধ

জীবনের প্রবোধ, আমাদের ঐতিহ্যর ঋনশোধ।

 

জটিলেরা এতে দেখে এমন মনোরম

কিছু কুটিল মন জানে এখানে কত সহস্রফনা

অসহায়ত্ব খেলানোর, ভয় দেখানোর, কতৃত্ব ফলানোর

সম্ভাবনা,

যদি ঠিকমত জানো… …আহা যদি জানো

অলক্ষ্য তর্জনী নাচানো…

 

মানুষ উপষনালয়ে যায় অদৃষ্ট স্রষ্টার সামনে দাঁড়ায়

আত্বার গহনে দিয়ে উঁকি, দাঁড়ায় নিজের মুখোমুখি

কৃত কর্মে না বুঝে খোঁজে, হয়তো অকারনেই দুঃখী

অতীন্দ্রিয় ভাষায় অন্য কোন প্রত্যাশায়

শোকে সংকটে সান্তনা চায়

গম্বুজের তলায়, একাগ্র উপাষনায়

মানুষের দেয়া তীব্র আঘাত সেটাই কি শেষ কথা?

প্রশান্ত ক্ষমাঃ বাঙময় সুরভিত নীরবতা

পরলোকে, হে প্রভু , তোমার ক্ষমাই সার্থকতা!

Facebook Comments