করোনা আসমা খান। Corona Virus, Asma Khan

873

করোনা  আসমা খান

‘করোনা’, ছোঁয়াচে অসুখের ভয়ংকর মহামারী

আক্রান্ত যখন নিজেই ‘শিকার’ এবং দক্ষ ‘শিকারী’

বিপুল  এ ধরনীর উত্তর দক্ষিন পুব বা পশ্চিমে

‘করোনা’ মেলেছে  ‘ভাইরাস’ পাখা ‘মিডিয়ার’ টীমে!!

 

চলমান দিনে, হটাৎ হতভম্ভ সবাই নগর চত্বরে

অবিলম্বে সবাই ফিরে গেছে  যে যার ঘরে ঘরে

শীতের সময়, সর্দী কাশি হটাৎ  জ্বর?

কি জানি ছুঁয়ে কি দিল ভাইরাস? কি  ভয়ঙ্কর!

দুরত্ব, হাত ধোঁয়া, আত্বরক্ষায়  বুঝি এটাই সমীচীন

বোধের গহনে শুয়ে আছে ‘করোনা’ হিম শীত দিন।

 

সীমান্ত বন্ধ, ক্রজ শীপ সাগরে, ভেরে না বন্দরে

প্রতিটি প্লাজা, প্রতিটি সড়ক, রেস্তরা, স্টেডিয়াম,

সিনেপ্লেক্স, গির্জা,সিনেগগ’, মন্দির মসজিদ,

এমনকি সারাক্ষণ লোকে গম গম করা পবিত্র ‘কাবা’

সব সব ফাঁকা, নীরব, কি ভয়ংকর ভাইরাস থাবা।

 

আগান্তুক এ  ‘ভাইরাস’, অজানা বড়ই ছোঁয়াচে মনে হয়

জনে জনে ছড়ায় ভয়, জীবন ছাড়াও কত অপচয়,

নেই চিকিৎসা, ঔষধ। প্রতিরোধহীন মানুষ হায় কত অসহায়!

জ্ঞান বিজ্ঞানে সৃষ্টির সেরাও আজ অকস্মাৎ থমকায়।

 

রূপহীন, গন্ধহীন, বর্নহীন ভাইরাস বায়বীয় ভূতের মত

অদৃশ্য প্রানঘাতী, বন্ধনহীন ক্ষমতায়  ধাঁয় উন্মত্ত

ঘুরে ঘুরে আসে মারীর ইতিহাস, যখন চরাচরে শুধু ভয়

অমর নয় কেউ ই কিন্তু  যখন আতঙ্কিত সকলে মৃত্যুর কথা কয়

ঘটনার চেয়ে রটনা  তখন অনেক অনেক জটিল মনে হয়।

 

ছোঁয়াচে রোগে পাইকারী রোগী কখন? কেউ কি জানে ? তবে…

একাই জন্ম,  যাপিত জীবন , সাধারন, বা সামাজিক গৌরবে

ঘোর দুর্যোগে প্রভু!  মারির মিছিলে একেলাই তো যেতে হবে… …

তবু জীবনের সৌরভেই কৃতজ্ঞ, আজ,  অন্য রকম মানবিক অনুভবে।

 

সরকার যখন শৃঙ্খলার কথা, দায়িত্বের কথা, আশার কথা বলে

করোনা সন্ত্রাসে একাকী কয়েদীর পাশে যখন দাঁড়ায় সাহসী কৌশলে

ভিন্ন ব্যাবস্থায় অভ্যস্থ সমাজ, ধীরে ধীরে মহামারী ডামাডোলে

সচেতন সবাই, দাড়িয়ে একই সমতলে, সভ্যতার পালাবদলে

একদা উদ্ধত  অহংকারী আজ উপলব্ধিতে হয় বিনীত ‘মানবিক’

ভাইরাস হানায় বোধের সীমানায় তখন জীবন করে ঝিকমিক!!