LATEST ARTICLES

Canadian Dream Yr 6 No 4, April 2019 Issue; Please send articles to  by 2nd  Friday of each month, by May 10, 2019 for May 2019...

Dear Brothers, Sisters, Kids, Assalamu Alykum. Please plan to join 7th  CBET Annual Family Iftar and Dinner  at SNMC  3020 Woodroffe Ave in Barrhaven, Sunday...

Neither Love nor Hatred can be Allowed to Compromise Justice, Dr. Emdad Khan, Ottawa God sent his prophets so that mankind must establish Justice in...

পরিবর্তন ...পরিবর্ধন ...! (Changes to humanity...improvements...!) Engr. S.B.M.Iqbal (Toronto)  ঘূর্ণি ঝড়ের ক্রমাবরতন ...আসুক নিয়ে পরিবর্তন ...! ধ্বংস লীলার আবর্তন ...আসুক নিয়ে মানবিক চেতন ...!! আগ্নেয় গিরির অগ্ন্যুৎপাতে ...লাভার...

The Company We keep, By S N Smith -- April 11, 2019 It is important that we be mindful of the company we keep because...

 New Zealand and Bill 83 designates January 29 as the day to recognize and take action on Islamophobia, Councillor Jan Harder, City of Ottawa On...

Ramadan Fasting Preparation, Dr. M. Shahid Siddiqi Ramadan the blessed month in a Muslim’s life. In this special month, Muslims are reminded of our fellow Muslim...

Barrhaven Independent Article on Climate Change, MP Chandra Arya, Nepean Canadians have long demanded that the government take serious action to curb the threat of...

রোজাও প্রতিবেশী - পর্ব -১ মোসলেম উদ্দীন Fasting and Neighbours, Engineer Moslem Uddin, Ottawa আল্লাহ তায়ালা  বলেন, ‘তোমাদের ওপর রমজানের রোজা ফরজ করা হয়েছে যেমন...

একটি মৃত আত্মা ও একগুচ্ছ গোলাপ - নাঈমা চৌধুরী:One Dead Soul and a Bunch of Roses by Nayeema Chowdhury মৃত্যু মানুষকে কেমন যেন  বিহ্বল করে দেয়,  এক করে দিয়ে যায় ক্ষণিকের জন্যে হলেও।  বহুদিন খোঁজ না রাখা মানুষেরাও ছুটে আসে সংবাদ শুনে,  হ্যাঁ, অনেকদিন অস্তিত্বহীন থাকার পর সে এখন সংবাদ হয়ে গেছে।  তাই তার সংবাদে যাদের  কিচ্ছু আসে যায় নি এতকাল  তারাও ছুটে এসেছে একগুচ্ছ গোলাপ হাতে।  তার নিস্পলক দৃষ্টির সামনে চেহারায় যথাসম্ভব বিষণ্ণতা ফুটিয়ে তোলার চেষ্টায় লিপ্ত তারা।  তাদের মুখে স্তুতিবাক্যের ফুলঝুরি শুনে  দ্বিধাগ্রস্ত হয়ে পড়ে সে, এরা কি আমার কথা বলছে? নিজের এত এত গুণের কথা অজানাই রয়ে গেল চিরকাল? জন্মের শুরু থেকে শেষ অবধি কেবলই শুনেছে তার দোষের কথা,  শুনতে শুনতে বিশ্বাস করেছে  নিতান্তই সাধারণ, তুচ্ছ  এবং নির্গুণ সে,  মানুষ নয়, ঊনমানুষ।  আজ তবে মরণ কাঠির ছোঁয়ায় প্রকাশিত হলো তার সমস্ত গুণ?  মৃতদেহের হাসবার ক্ষমতা থাকলে হয়তো ফিক্ করে হেসেই ফেলত সে,  এই ভারবাহী শোক ও শ্রদ্ধা দর্শনে।  গোলাপগুচ্ছ থেকে নিদেন পক্ষে  একটা গোলাপ তুলে দিয়ে  সহাস্যে ঘোষণা করত -  অ্যান্ড দা অ্যাওয়ার্ড ফর বেস্ট পারফরমেন্স গোউজ টু... ধুর...হলো না। শেষ একটা চান্স তো দিতে পারতে ঈশ্বর?  সারাটা জীবন হৃদয়কে রক্তাক্ত করেছে যারা  আজ তার কাফনের শুভ্রতাও নষ্ট, রঙিন ও কন্টকময় সেই তাদের হাতেই। এমন নয় যে মরণ তাকে আজ নতুন করে বাক্যহারা করেছে,  তবু জীবনে যা পারেনি মরণে তা বলতে ইচ্ছে হয়,  শেষ একবার ওদের বলতে চায় সে,  যাকে মৃত জেনে ফুল দিতে এসেছ আজ সে তো মরে গেছে বহুকাল, যেদিন তিলে তিলে মরে গিয়েছিল তার আত্না। তোমরা কেউই তা দেখতে পাওনি। দেহের মৃত্যু সবাই দেখতে পায় মৃত আত্মার খবর কেউ রাখে না।